অস্ট্রেলিয়ায় ‘অনুশীলন’ সফরে খুশি এনামুলরা

অস্ট্রেলিয়ায় ‘অনুশীলন’ সফরে খুশি এনামুলরা

89
0
SHARE

অস্ট্রেলিয়া সফরে পাঁচে পাঁচ পেয়েছে বিসিবি হাইপারফরম্যান্স (এইচপি) দল। ডারউইনে মারারা ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নর্দার্ন টেরিটরি (এনটি) আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে প্রতিটি একদিনের ম্যাচই জিতেছে এইচপি দল। স্বীকৃত সিরিজ হলে বলা যেত, নর্দার্ন টেরিটরিকে ধবলধোলাই করেছে এইচপি! যেহেতু এই সফরে অনুশীলনই মূল কথা, সেটি ভালোই হয়েছে লিটন দাসের নেতৃত্বে অস্ট্রেলিয়ায় যাওয়া এইচপি দলের।
নর্দার্ন টেরিটরির বিপক্ষে এইচপি সাফল্যের রহস্য দল হিসেবে খেলা। একক নৈপুণ্য কম, বরং ‘দশ মিলে করি কাজের’ উদাহরণই বেশি। পাঁচটি একদিনের ম্যাচে সেঞ্চুরি পেয়েছেন দুজন—নাজমুল হোসেন শান্ত ও সাইফউদ্দিন। তবে এই দুজন কিন্তু ধারাবাহিক রান পাননি। সেঞ্চুরির ইনিংসটা বাদে ফিফটিও ছুঁতে পারেননি তাঁরা। দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের মধ্যে কিছুটা ধারাবাহিক ছিলেন এনামুল হক, পেয়েছেন দুটি ফিফটি।
বোলারদের মধ্যে কেউ ৫ উইকেট না পেলেও একবার করে ৪ উইকেট পেয়েছেন সাইফ ও তানভীর হায়দার। ৪ ম্যাচে ৯ উইকেট নিয়ে সবার ওপরে সাইফ। অসাধারণ এই অলরাউন্ড পারফরম্যান্সের পরও একটু অতৃপ্তি কাজ করছে ২০ বছর বয়সী অলরাউন্ডারের মনে, ‘সব মিলিয়ে ভালো হয়েছে। তবে আরও ভালো হতে পারত।’ সাইফের অতৃপ্তিটা আসলে ব্যাটিংয়ে, ‘১২৫ রান করেছি। যে ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছিলাম সেটিতে পাঁচে নেমেছিলাম। অন্য ম্যাচগুলোয় নেমেছি ইনিংসের শেষ দিকে। তবুও বলব সব ঠিক আছে। ম্যাচগুলোর মাঝে বিরতিও ছিল না। টানা ম্যাচে ভালো করা একটু কঠিন।’
দুটি ফিফটি করলেও একবারও তিন অঙ্কের দেখা পাননি এনামুল। তবে এটি নিয়ে খুব একটা চিন্তিত নন জাতীয় দলের বাইরে থাকা এই ওপেনার, ‘লম্বা ইনিংস খেলাটা অভ্যাসের ব্যাপার। যত লম্বা ইনিংস খেলবেন তত আত্মবিশ্বাসী হবেন। ভালো যেহেতু হচ্ছে, আরও ভালো করার চেষ্টা করব। তবে ক্রিকেটে ভাগ্য একটা ব্যাপার। যেদিন ভাগ্য সঙ্গে থাকবে, ইনিংসটা দীর্ঘ করতে পারবেন। ইতিবাচক দিক হচ্ছে সঠিক প্রক্রিয়ার মধ্যে আছি। আর একবার অভ্যাস (লম্বা ইনিংসের) শুরু হলে হয়তো চলতে থাকবে।’
সেই ‘অভ্যাস’টা এনামুল নিশ্চয়ই শুরু করতে চাইবেন কাল থেকে। একই ভেন্যুতে একই দলের বিপক্ষে সফরের একমাত্র তিন দিনের ম্যাচটি শুরু হবে আগামীকাল।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY