দীপিকার পাশে কঙ্গনার ‘না’

দীপিকার পাশে কঙ্গনার ‘না’

173
0
SHARE

স্রোতের বিপরীতে হাঁটতে ভালোবাসেন কঙ্গনা রনৌত। এবারও তা-ই করলেন। ‘পদ্মাবতী’ ছবির জন্য যখন দীপিকা পাড়ুকোনকে একের পর এক হুমকি দেওয়া হচ্ছে, তখন পুরো বলিউড তাঁর পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। বলিউডের সবাই দীপিকার পক্ষে কথা বলেছেন। কিন্তু এ ক্ষেত্রে দীপিকার পাশে দাঁড়াতে সরাসরি ‘না’ বললেন কঙ্গনা রনৌত। স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিলেন, দীপিকার পাশে নেই তিনি। কিন্তু কেন?

দীপিকাকে সুরক্ষার জন্য বলিউডের অভিনেত্রী শাবানা আজমি ‘দীপিকা বাঁচাও’ প্রচার শুরু করেছেন। এই আবেদনে তিনি বলিউডের প্রায় সব অভিনেত্রীকে দিয়ে স্বাক্ষর করিয়েছেন। এই আবেদনে দীপিকাকে সুরক্ষার কথা উল্লেখ আছে। আবেদনটিতে এরই মধ্যে স্বাক্ষর করেছেন হেমা মালিনী, জয়া বচ্চন, কারিনা কাপুর খান, আলিয়া ভাট, বিদ্যা বালানসহ নতুন-পুরোনো অনেক অভিনেত্রী। নায়িকাদের স্বাক্ষর করা এই আবেদনপত্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে পাঠানো হবে।

এদিকে এই আবেদনপত্রে স্বাক্ষর নেওয়ার জন্য কঙ্গনার কাছে যান শাবানা আজমি। কিন্তু কঙ্গনা তাঁকে শূন্য হাতে ফিরিয়ে দেন। জানিয়ে দেন, এই আবেদনে তিনি স্বাক্ষর করবেন না। কিন্তু কেন স্বাক্ষর করতে চাননি, এখনো এ ব্যাপারে মুখ খোলেননি কঙ্গনা। অনেকে ধারণা করছেন, কঙ্গনা যখন হৃতিক রোশন আর আদিত্য পাঞ্চোলির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছিলেন, তখন বলিউডের কাউকে তিনি পাশে পাননি। উল্টো অনেকেই কটাক্ষ করেন তাঁকে। সম্প্রতি কঙ্গনা প্রথম আলোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলিউডের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘বলিউড মিথ্যাচারিতায় ভরে গেছে। কেউ সত্যি কথা বলতে জানে না এখানে।’ তাই হয়তো কঙ্গনা বলিউডের ‘পদ্মাবতী’র পাশে দাঁড়াতে চাননি।

কঙ্গনা এখন ব্যস্ত ‘মণিকর্ণিকা’ ছবির শুটিং নিয়ে। এই ছবির শুটিংয়ে পরপর দুবার চোট পান তিনি। ‘মণিকর্ণিকা’র পর কঙ্গনা পরিচালক হিসেবে বলিউডে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছেন। নিজের পরিচালিত ছবি ‘তেজু’তে কঙ্গনাকে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধার চরিত্রে দেখা যাবে। এ ছাড়া সম্প্রতি এক দৈনিক পত্রিকায় তিনি জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে নিজের পরিচালিত ছবি ছাড়া তিনি বাইরের কোনো পরিচালকের সঙ্গে কাজ করবেন না।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY