উগ্রবাদ মোকাবিলায় নতুন আইন আনতে চায় ফ্রান্স সরকার

ফ্রান্সে নিরপেক্ষ মতাদর্শিক মূল্যবোধ জারি রাখতে এবং বিদ্বেষমূলক বক্তব্য মোকাবিলার অংশ হিসেবে নতুন একটি বিলের অনুমোদন দিয়েছে দেশটির মন্ত্রিসভা। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি ফ্রান্সে উগ্রবাদীদের একাধিক হামলার পর ‘কট্টর ইসলাম’ মোকাবিলার লক্ষ্যে দেশটির মন্ত্রিসভা বিলটির অনুমোদন দিয়েছে।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর দীর্ঘকালীন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে খসড়া আইনটি তৈরি করা হয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

তবে ফ্রান্স ও অন্যান্য দেশের একাধিক সমালোচকের অভিযোগ, ধর্মকে নিশানা করতে ম্যাক্রোঁ সরকার আইনটি তৈরি করছে।

তবে ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী জ্যঁ ক্যাসটেক্স বলছেন, নতুন প্রস্তাবিত আইনটি কট্টরপন্থিদের কব্জা থেকে মুসলিমদের মুক্ত করবে। তাঁর ভাষায় এটি হলো ‘সুরক্ষার জন্য আইন’।

জ্যঁ ক্যাসটেক্স জোর দিয়ে বলেন, প্রস্তাবিত আইনটি ‘ইসলাম বা অন্য কোনো ধর্মের বিরুদ্ধে’ নয়।

কী আছে প্রস্তাবিত আইনে?

মন্ত্রিসভায় পাস হওয়া বিলে বলা হয়েছে, এটি অনলাইনে বিদ্বেষ ছড়ানোর বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ আরো জোরদার করবে এবং ক্ষতিসাধনের উদ্দেশ্যে কারো ব্যক্তিগত তথ্য প্রকাশ করতে ইন্টারনেটের ব্যবহার নিষিদ্ধ করতে প্রস্তাবিত আইনটি ব্যবহার করা হবে।

ফ্রান্সের এমন পদক্ষেপকে গত অক্টোবরে স্যামুয়েল প্যাটি নামের এক ফরাসি শিক্ষকের শিরশ্ছেদ করার জবাব হিসেবে দেখা হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মহানবী (স.)-এর কার্টুন দেখানোর পর এক হামলাকারী ৪৭ বছর বয়সী প্যাটিকে হত্যা করে।

Add Comment