এবার সুসংবাদ পেলেন মেসি

লিওনেল মেসির জন্য দারুণ এক সুসংবাদ দিয়েছে আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। এএফএ সভাপতি ক্লদিও তাপিয়া জানিয়েছেন, আগামী অক্টোবরে ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ইকুয়েডর ও বলিভিয়ার বিপক্ষে দুটি ম্যাচে খেলতে পারবেন এই বার্সেলোনা তারকা।

গত বছর কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে লাল কার্ড পেয়েছিলেন মেসি। তাই বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের পরবর্তী দুটি ম্যাচে তাঁর খেলা নিয়ে সংশয় ছিল। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞার সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে খেলতে আর কোনো বাঁধা নেই মেসির।

আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, ‘এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার নির্ধারিত সময়সীমা পার হয়ে যাওয়ায় বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলতে পারবেন মেসি।’

আগামী ৮ অক্টোবর বুয়েন্স আয়ার্সে ইকুয়েডরের বিপক্ষে খেলতে নামবে আর্জেন্টিনা। এরপর ১৩ অক্টোবর বলিভিয়ার মুখোমুখি হবে তারা।

গত বছর কোপা আমেরিকা কাপের সেমিতে ব্রাজিলের বিপক্ষে হারের পর বাজে রেফারিং নিয়ে অভিযোগ তুলেছিলেন মেসি। ব্রাজিলকে জেতানোর জন্যই তারা এমনটি করেছে বলে দাবি করেছিলেন এই আর্জেন্টাইন তারকা।

সেই রেশ না কাটতেই তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির বিপক্ষে খেলতে নামে আর্জেন্টিনা। সেখানে ঘটেছিল আরেক বিপত্তি। ম্যাচের ৩৭ মিনিটে চিলির ডিফেন্ডার গ্যারি মেদেলের সঙ্গে বল দখলের লড়াই জমে ওঠে মেসির। অনেকক্ষণ ধরে তা চলে। বিষয়টি ভালোভাবে নেননি রেফারিরা। দুজনকেই লালকার্ড দেখান তারা। অথচ ঘটনা গুরুতর ছিল না।

ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনা জিতলেও পুরষ্কার নেননি মেসি। রেফারি ও মহাদেশীয় ফুটবল সংস্থাকে ধুয়ে দেন তিনি। মেসি দাবি করেছিলন, ‘ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করতে আগে থেকেই সব বন্দোবস্ত করে রেখা হয়েছিল। যোগসাজশ ছিল ব্রাজিলীয়দের। শেষ পর্যন্ত পেরুকে উড়িয়ে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ব্রাজিল।’

Add Comment