করোনায় আরো ৩৬ জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১৫৯৩ জন : স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

নভেল করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চার হাজার ৮৫৯ জনের মৃত্যু হলো। এ ছাড়া দেশে নতুন করে আরো এক হাজার ৫৯৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট তিন লাখ ৪৪ হাজার ২৬৪ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৪টি ল্যাবে নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৭৬৯টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এর মধ্যে ১৩ হাজার ৬৭৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে দুই হাজার ৪৪৩ জন। দেশে এ নিয়ে সর্বমোট সুস্থ হয়েছে দুই লাখ ৫০ হাজার ৪১২ জন।

এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৩৬ জনের মধ্যে পুরুষ ২৮ ও নারী আটজন। এ নিয়ে করোনায় মোট তিন হাজার ৭৮৮ জন পুরুষের মৃত্যু হয়েছে এবং নারী মারা গেছে এক হাজার ৭১ জন।

বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে দুজন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে একজন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে পাঁচজন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে সাতজন এবং ষাটোর্ধ্ব ২১ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ২০ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে পাঁচজন, রাজশাহী বিভাগে চারজন, খুলনা বিভাগে দুজন, বরিশাল বিভাগে তিনজন, সিলেট বিভাগে একজন ও রংপুর বিভাগে একজন  রয়েছেন। মৃত ৩৪ জনের মধ্যে দুজন  হাসপাতালে ও একজন বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেছেন।

দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী পাওয়ার কথা জানানো হয় এবং প্রথম মৃত্যু হয় গত ১৮ মার্চ। এরপর গত ১৪ এপ্রিল ৩৮তম দিনে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা এক হাজারে দাঁড়ায়।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম দেখা দেওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ, অঞ্চল এবং দুটি আন্তর্জাতিক প্রমোদতরীতে ছড়িয়েছে।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

Add Comment