টানা চার সপ্তাহ ঊর্ধ্বমুখী ধারায় পুঁজিবাজার

আগের তিন সপ্তাহের ধারাবাহিকতায় গত সপ্তাহেও সূচকে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা গেছে দেশের শেয়ারবাজারে। সূচকের পাশাপাশি গত সপ্তাহে দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই টাকার অংকে লেনদেন বেড়েছে।

বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, পুঁজিবাজারের উন্নয়নের লক্ষ্যে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বেশকিছু পদক্ষেপ নেয়ার কারণে বিনিয়োগকারীদের আস্থা বেড়েছে। বিশেষ করে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কোম্পানি প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া ও পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্তির অপেক্ষায় থাকায় বাজার কিছুটা চাঙ্গা হয়েছে। সামনের দিনগুলোয় দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে পুঁজিবাজারেও গতিশীলতা ফিরে আসার প্রত্যাশা করছেন বিনিয়োগকারীরা। এর ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে গত চার সপ্তাহের লেনদেনে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা যায়, গত সপ্তাহে ডিএসইএক্স ২ দশমিক ১৬ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে ৫ হাজার ২১৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে, আগের সপ্তাহ শেষে যা ছিল ৫ হাজার ১০৮ পয়েন্ট। এ সময়ে নির্বাচিত কোম্পানির সূচক ডিএসই৩০ ৪ দশমিক ৩৪ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ৮৭৬ ও শরিয়াহ সূচক ডিএসইএস ২ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ২০৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে দৈনিক গড় লেনদেন ২২ দশমিক ৯৩ শতাংশ বেড়েছে। স্টক এক্সচেঞ্জটিতে প্রতি কার্যদিবসে গড়ে ১ হাজার ১২৪ কোটি ৭৫ লাখ টাকার সিকিউরিটিজ হাতবদল হয়েছে, আগের সপ্তাহে যা ছিল ৯১৪ কোটি ৯৫ লাখ টাকা। পাঁচ কার্যদিবসে ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৫ হাজার ৬২৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা, আগের সপ্তাহে যা ছিল ৩ হাজার ৬৫৯ কোটি ৮২ লাখ টাকা।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৬৭টি কোম্পানি, মিউচুয়াল ফান্ড ও করপোরেট বন্ডের মধ্যে সপ্তাহ শেষে দর বেড়েছে ১০৯টির, কমেছে ১৯৩টির, অপরিবর্তিত ছিল ৬২টির আর লেনদেন হয়নি তিনটির।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেনে শীর্ষে ছিল বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি (বেক্সিমকো) লিমিটেড, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেড, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড, ওরিয়ন ফার্মা লিমিটেড, রূপালী ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, রিপাবলিক ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড, ফরচুন সুজ লিমিটেড ও ওয়ালটন হাইটেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

এক্সচেঞ্জটিতে গত সপ্তাহে দর বৃদ্ধিতে (সমাপনী দরের ভিত্তিতে) শীর্ষে ছিল বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ইমপোর্ট কোম্পানি (বেক্সিমকো) লিমিটেড, বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, শাইনপুকুর সিরামিকস লিমিটেড, জেএমআই সিরিঞ্জেস অ্যান্ড মেডিকেল ডিভাইসেস লিমিটেড, ইফাদ অটোজ লিমিটেড, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবল কোম্পানি লিমিটেড, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, ফিনিক্স ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস লিমিটেড ও সোনালী আঁশ ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড।

এদিকে গত সপ্তাহে ডিএসইতে দরপতনে শীর্ষে ছিল ডমিনেজ স্টিল বিল্ডিং সিস্টেমস লিমিটেড, ইউনিলিভার কনজিউমার কেয়ার লিমিটেড, জিকিউ বলপেন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, ইনটেক লিমিটেড, বিডি ল্যাম্পস, সাভার রিফ্র্যাক্টরিজ লিমিটেড, ইবিএল এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড, আরামিট লিমিটেড, আইসিবি এএমসিএল থার্ড এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ড ও সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

দেশের আরেক পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহে সিএসসিএক্স সূচক ২ দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়ে সপ্তাহ শেষে ৯ হাজার ৩৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। সিএসইতে পাঁচ কার্যদিবসের লেনদেনে মোট ২৩২ কোটি ৪০ লাখ টাকার সিকিউরিটিজ হাতবদল হয়েছে, আগের সপ্তাহে যা ছিল ২১৩ কোটি ৫৩ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া ৩১৬টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১০৪টির, কমেছে ১৫২টির আর অপরিবর্তিত ছিল ৬০টির বাজারদর।

Add Comment