নারীদের পর্দার নির্দেশ, জনস্বাস্থ্যের পরিচালককে শোকজ

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে কর্মরত ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের পর্দা মেনে চলার ও পোশাক বিধি নির্ধারণ করে নির্দেশ দেওয়া ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিমকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ (শোকজ) দেওয়া হয়েছে। আগামী তিন কর্মদিবসের মধ্যে নির্দেশের ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালককে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম প্রধান আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এনটিভি অনলাইনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি আরো বলেন, বিষয়টি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নজরে এসেছে তাই তিনি এ ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গতকাল বুধবার জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিম এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নির্দেশনায় বলেন, ‘অফিস চলার সময় জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে মোবাইল ফোনের শব্দ বা মোবাইল ফোন বন্ধ রাখতে হবে। ইনস্টিটিউটের পুরুষদের টাকনুর উপরে এবং মহিলাদের হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরিধান করা আবশ্যক এবং পর্দা মেনে চলার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো।’

এই বিজ্ঞপ্তি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। এরপর বিকেলে ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এই বিজ্ঞপ্তি শুধু অফিসের ভেতরের জন্য। এটা কিন্তু গণমাধ্যমে দেইনি। এটা নিয়ে আর কিছু বলতে চাচ্ছি না।’

এর মধ্যেই স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে পরিচালককে শোকজ করার নোটিশ দেওয়া হলো।

এ ব্যাপারে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম বলেন, ‘জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের (আইপিএইচ) পরিচালকের জারি করা পোশাক সংক্রান্ত নির্দেশনাটি আজই স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নজরে আসে। তারপর মন্ত্রী বিষয়টির ক্ষেত্রে জরুরি পদক্ষেপ নিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেন।‘

‘এই পরিপ্রেক্ষিতে আজ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তর উভয় জায়গা থেকেই জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালককে কারণ দর্শানোর চিঠি দেওয়া হয়েছে। আগামী ১ নভেম্বর এ ব্যাপারে আপডেট জানানো হবে’, যোগ করেন তথ্য কর্মকর্তা।

পরিচালককে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, “আপনি নিজ স্বাক্ষরে গত বুধবার ‘অফিস চলার সময় জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সব কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে মোবাইল ফোনের শব্দ বা মোবাইল ফোন বন্ধ রাখতে হবে। ইনস্টিটিউটের পুরুষদের টাকনুর উপরে এবং মহিলাদের হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরিধান করা আবশ্যক এবং পর্দা মেনে চলার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো’- মর্মে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন।“

‘এমতাবস্থায় জারিকৃত বিজ্ঞপ্তিটি কোন বিধিবলে এবং কোন কর্তৃপক্ষের অনুমতিক্রমে জারি করা হয়েছে তার স্পষ্টীকরণ ও ব্যাখ্যা আগামী তিন কর্ম দিবসের মধ্যে প্রেরণ করার জন্য অনুরোধ করা হলো’, যোগ করা হয় চিঠিতে।

Add Comment