Home Economics বৈশ্বিক অর্থনীতির অশনি সংকেত : পর্ব – ১

বৈশ্বিক অর্থনীতির অশনি সংকেত : পর্ব – ১

অর্থনীতি জিনিসটি বরাবরই কঠিন এবং জটিল I বর্তমান সময়ে এর ধারা আরো কঠিন হচ্ছে I মহামারী  পরবর্তী সময় , ইউক্রেন রাশিয়ার যুদ্ধ , সবকিছু মিলে পৃথিবীটাকে চেপে ধরেছে Iসব অর্থনীতিবিদদের ভবিষ্যৎবাণীকে পিছনে ফেলে মুদ্রাস্ফীতির হার অকল্পনীয় হারে বাড়ছে I পূর্বে জিম্বাবুয়ের মুদ্রাস্ফীতি কি নিয়ে সবাই মজা করত I এখন প্রায় প্রতিটি দেশ জিম্বাবুয়েকে ছাড়িয়ে যাচ্ছে I যেসব রাষ্ট্রকে উন্নত রাষ্ট্র ধরা হয় সেসব দেশের মুদ্রাস্ফীতি  দুই অঙ্কের মাত্রা ছাড়িয়ে গিয়েছে I g-8 ভুক্ত দেশগুলো একের পর এক ব্যাংক রেট বাড়াচ্ছে I  যার প্রভাব পড়ছে উন্নয়নশীল দেশগুলোতে I পাশাপাশি বড় বড় স্টকমার্কেট গুলির ভয়াবহ পতন হচ্ছে I শুধুমাত্র জানুয়ারি মাস থেকে মে মাস পর্যন্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টক মার্কেট ৭  ট্রিলিয়ন ডলারের বাজার হারিয়েছে I পাশাপাশি ডিসেন্ত্রালাইজ ফাইন্যান্স এবং ক্রিপ্টোকারেন্সি প্রায় ২ ট্রিলিয়ন ডলারের বাজার মূল্য হারিয়ে ফেলছে I
যদি রিয়েল স্টেট মার্কেট ধরা হয় সেখানেও বিশাল পতন ঘটছে I বিশ্বব্যাপী  রিয়েল স্টেট কোম্পানিগুলি নিজেদেরকে দেউলিয়া ঘোষণা করছে I
এতক্ষণ তো সব খারাপ  দিক নিয়ে আলোচনা করা হলো I  এই সমস্যা সমাধানের আরো অনেক পথ রয়েছে I “যুদ্ধ নয় শান্তি “ এই মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে   অনতিবিলম্বে যুদ্ধ বন্ধ করতে হবে I দক্ষ জনশক্তি উন্নয়নে জোর দিতে হবে I ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা তৈরিতে বিশ্বব্যাপী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে I নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরিতে সহজশর্তে অর্থ ব্যবস্থা করতে হবে I নতুন নতুন ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফার্মগুলো এগিয়ে আসতে হবে তরুণ উদ্যোক্তাদের কে সাহায্য করার জন্য I বাজারে শক্তিশালী মনিটরিং সেল স্থাপন করতে হবে I অপ্রয়োজনীয় খরচ বাদ দিয়ে অল্প বয়স থেকেই সঞ্চয় উৎসাহ প্রদান করতে হবে I
যদি দ্রুততার সাথে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় তাহলে আমরা একটি বড় ধরনের অর্থনৈতিক বিপর্যয় হতে রক্ষা পেতে পারবো I আর পরবর্তী প্রজন্মের কাছে উপহার দিয়ে যেতে পারবো ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত একটি পৃথিবী I
Writer:
Monir Chowdhury , MAICD
Director, SBTG

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here