বিজয়ের উৎসবে রাজধানীসহ পুরো দেশ

৪৯তম বিজয় দিবস পূর্ণ করে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে পা রাখতে চলছে বাংলাদেশ। এ উপলক্ষে লাল-সবুজ আলোকসজ্জায় সেজেছে রাজধানী ঢাকাসহ পুরো দেশ। শহর জুড়ে চারদিকে চলছে দেশাত্ববোধক গান, পাড়া-মহল্লায় চলছে বিভিন্ন খেলার আয়োজন। হালকা হালকা শীতে বিজয়ের এ আনন্দে মেতে ওঠেছে পুরো দেশ। রাজনৈতিক অঙ্গনেও পড়েছে এর প্রভাব।

ডিসেম্বর মাসের শুরু থেকেই চলছে মহান বিজয় দিবস উদযাপনের প্রস্তুতি। আজ পেয়েছে তার পূর্ণতা। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে এমন দৃশ্য দেখা গেছে।

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী উপলক্ষে লাল, সবুজসহ নানা আলোয় সেজেছে রাজধানী ঢাকাসহ পুরো দেশ। জাতীয় সংসদ ভবন, সরকারি বিভিন্ন ভবন ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো সাজানো হয়েছে নানা রঙের বাতি দিয়ে। আলোকিত রাজধানী দেখতে আজ মঙ্গলবার রাতে ঘর ছেড়ে বের হয়ে আসেন অনেকে। বিজয়ের আনন্দে মেতে ওঠেন তারা। ছবি : মোহাম্মদ ইব্রাহিম
মানিক মিয়া এভিনিউয়ে গিয়ে দেখা যায়, সংসদ ভবনের দক্ষিণ পাশে আলোকসজ্জায় তৈরি হয়েছে বাংলাদেশের মানচিত্র আর পাশেই রয়েছে জাতীয় পতাকা। পুরো মাঠ জুড়ে রয়েছে লাল সবুজের আলো। উপস্থিত দর্শনার্থীরা এ সুন্দর দৃশ্যের সঙ্গে ছবি তুলছিল।

এরপর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণকেন্দ্র টিএসসিতে গিয়ে দেখা যায়, সেখানেও আলোকসজ্জা। পাশেই চলছিল কনসার্ট। কনসার্ট থেকে ভেসে আসছিল শিল্পী আব্দুল লতিফের কথা ও সুর করা গান ‘দাম দিয়ে কিনেছি বাংলা, কারোর দানে পাওয়া নয়, আমি দাম দিছি প্রাণ লক্ষ কোটি, জানা আছে জগৎময়…।’

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী উপলক্ষে লাল, সবুজসহ নানা আলোয় সেজেছে রাজধানী ঢাকাসহ পুরো দেশ। জাতীয় সংসদ ভবন, সরকারি বিভিন্ন ভবন ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো সাজানো হয়েছে নানা রঙের বাতি দিয়ে। আলোকিত রাজধানী দেখতে আজ মঙ্গলবার রাতে ঘর ছেড়ে বের হয়ে আসেন অনেকে। বিজয়ের আনন্দে মেতে ওঠেন তারা। ছবি : মোহাম্মদ ইব্রাহিম
একই চিত্র দেখা যায় ফার্মগেট, শাহবাগ, শেরে বাংলা নগর, পল্টন, মোহাম্মদপুর, ধানমণ্ডি ৩২, বিজয় স্মরণী, মহাখালী, মগবাজার, মতিঝিল, রাজধানীর কারওয়ান বাজার, বাংলামোটর ও গুলিস্তানে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় এলাকায়।

দেখা গেছে, ধর্ম-বর্ণ, ধনী-গরিব সবাই মিশে একাকার হয়ে গেছে। লাল-সবুজের আবহ মিশিয়ে বাংলাদেশের পতাকার আদলে করা বিভিন্ন ভবনে আলোকসজ্জা ছিল দৃষ্টিনন্দন। ভবনে বাতির ঝলমলে আলোয় ফুটে উঠেছে লাল-সবুজের জাতীয় পতাকা।

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী উপলক্ষে লাল, সবুজসহ নানা আলোয় সেজেছে রাজধানী ঢাকাসহ পুরো দেশ। জাতীয় সংসদ ভবন, সরকারি বিভিন্ন ভবন ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো সাজানো হয়েছে নানা রঙের বাতি দিয়ে। আলোকিত রাজধানী দেখতে আজ মঙ্গলবার রাতে ঘর ছেড়ে বের হয়ে আসেন অনেকে। বিজয়ের আনন্দে মেতে ওঠেন তারা। ছবি : মোহাম্মদ ইব্রাহিম
এদিকে, মহান বিজয় উপলক্ষে সরকারি, বেসরকারি ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

আওয়ামী লীগের কর্মসূচি : সূর্যোদয় ক্ষণে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, ধানমণ্ডির ৩২ ভবনে বঙ্গবন্ধু ভবন ও দেশব্যাপী সংগঠনের কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন।

মহান মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের ৪৯তম বার্ষিকী উপলক্ষে লাল, সবুজসহ নানা আলোয় সেজেছে রাজধানী ঢাকাসহ পুরো দেশ। জাতীয় সংসদ ভবন, সরকারি বিভিন্ন ভবন ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলো সাজানো হয়েছে নানা রঙের বাতি দিয়ে। আলোকিত রাজধানী দেখতে আজ মঙ্গলবার রাতে ঘর ছেড়ে বের হয়ে আসেন অনেকে। বিজয়ের আনন্দে মেতে ওঠেন তারা। ছবি : মোহাম্মদ ইব্রাহিম
সকাল ৯টায় সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য নিবেদন। সকাল ৯.৩০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়ায় চিরনিদ্রায় শায়িত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, জিয়ারত, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল। সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু ভবনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন। বিকেলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সীমিত পরিসরে আলোচনা সভা। আলোচনা সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

গোপালগঞ্জের ঐতিহাসিক টুঙ্গিপাড়ায় অনুষ্ঠিতব্য কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে অংশ নিবেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য আজিজুস সামাদ ডন ও সৈয়দ আবদুল আউয়াল।

Add Comment