বিয়ের কথা বলে ঢাকায় ডেকে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গাইবান্ধা থেকে ঢাকায় ডেকে এনে এক তরুণীকে একটি বাসায় আটকে রেখে টানা কয়েকদিন ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগে রাজধানীর মাদারটেক এলাকা থেকে গতকাল শনিবার বিকেলে দুজনকে গ্রেপ্তার করে সবুজবাগ থানা পুলিশ।

আজ রোববার বিকেলে সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব আলম এনটিভি অনলাইনকে এই তথ্য জানান।

মাহবুব আলম বলেন, ‘ছয় মাস আগে মোবাইলে রং নম্বর কল গিয়ে ওই তরুণীর সঙ্গে সবুজ মিয়ার (৩২) পরিচয় ঘটে। তারপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পাঁচ-ছয় দিন আগে ওই তরুণীকে বিয়ে করার কথা বলে গাইবান্ধা থেকে ঢাকায় ডেকে আনেন সবুজ মিয়া। পরে সবুজ একটি ভাড়া বাসায় তাঁকে আটকে রেখে কয়েকদিন ধর্ষণ করেন বলে তরুণীর অভিযোগ।’

ওসি মাহবুব বলেন, ‘গতকাল শনিবার ওই বাসা থেকে কৌশলে পালিয়ে থানায় আসেন তরুণী। এরপর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১)/৩০ ধারায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে মামলা করেছেন। মামলার পর সবুজ মিয়া ও তাঁর সহযোগী আবদুস সামাদকে (৩৫) গ্রেপ্তার করি আমরা।’

সবুজবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) খন্দকার নাছির উদ্দিন বলেন, ‘আজ রোববার দুপুরে মামলার বাদী তরুণীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া দুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Add Comment