ভারতের উত্তরাখণ্ডে তুষারধসে নিখোঁজ ১৫০, গ্রাম প্লাবিত

ভারতের উত্তরাখণ্ডের চমোলি জেলায় তুষারধসে চাপা পড়ে অন্তত ১৫০ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ছাড়া তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

আজ রোববার সকালের ওই তুষারধসের জেরে জোশীমঠের কাছে ধউলিগঙ্গা নদীর পানির প্রবাহ বেড়ে গেছে। বেশ কয়েকটি গ্রাম ভেসে যাওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উত্তরাখণ্ডের মুখ্যসচিব ওম প্রকাশ ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বলেন, ঘটনার সময় সেখানে ঋষিগঙ্গা পাওয়ার গ্রিড প্রকল্পে ১৫০ শ্রমিক কাজ করছিলেন। তারা অনেকেই পানিতে ভেসে গিয়ে থাকতে পারেন।

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে ভারত-তিব্বত সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ২০০ জনের উদ্ধারকারী দল। চমোলি থেকে ঋষিকেশ যাওয়ার রাস্তায় এরই মধ্যে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে জানিয়েছেন, তাঁর সঙ্গে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রীর কথা হয়েছে। তিনি পুরো বিষয়টির ওপর নজর রাখছেন। টুইটে মোদি লেখেন, ‘গোটা দেশ উত্তরাখণ্ডের পাশে আছে। উত্তরাখণ্ডের বিপন্নদের জন্য প্রার্থনা করছে দেশবাসী। আমি নিজে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সঙ্গে কথা বলেছি। উদ্ধার কাজের প্রতি মুহূর্তের খবর রাখছি আমি।’

উদ্ধারকাজ জোর কদমে এগিয়ে চলেছে বলে জানান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত রোববার দুপুরেই বিপর্যস্ত এলাকার তথ্য জানার জন্য হেল্পলাইন নম্বর প্রকাশ করেছেন। টুইট করে মুখ্যমন্ত্রী জানান, যদি ঘটনাস্থলে কেউ আটকে পড়ে থাকেন তবে তারা ১০৭০ অথবা ৯৫৫৭৪৪৪৪৮৬ নম্বরে যোগাযোগ করুন।

এ ছাড়া পুরানো ভিডিও বা ছবি দেখে গুজব ছড়ানোর ব্যাপারেও সতর্ক থাকতে বলেছেন রাওয়াত।

Add Comment