মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে বাইডেনের শপথ আজ

নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অভিষেক আজ বুধবার। এদিন স্থানীয় সময় দুপুরে প্রধান বিচারপতির মাধ্যমে শপথবাক্য পাঠ করে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেবেন বাইডেন। একই সঙ্গে সহযোগী বিচারপতি সোনিয়া সোটোমেওরের কাছে শপথবাক্য পড়ে দায়িত্ব নেবেন দেশটির প্রথম নারী ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। সংবাদমাধ্যম সিএনএন ও এনবিসি এ খবর জানিয়েছে।

নতুন রাষ্ট্রপ্রধানকে বরণ করে নিতে প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র। বাইডেনের অভিষেক উপলক্ষে ওয়াশিংটন ডিসিসহ প্রতিটি শহরেই এবার নেওয়া হয়েছে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা। তবে নভেল করোনাভাইরাসের প্রকোপের কারণে নেই গণজমায়েতের সুযোগ, ঘরে বসেই নতুন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার আনুষ্ঠানিকতা দেখবেন আমেরিকানরা।

বাইডেনের অভিষেক উপলক্ষে ওয়াশিংটন ডিসির ন্যাশনাল মলের পুরো চত্ত্বর মুড়ে দেওয়া হয়েছে এক লাখ ৯১ হাজার ৫০০ পতাকা দিয়ে। যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ও টেরিটরির নির্দেশক ৫৬টি পিলারে মনোমুগ্ধকর আলোকসজ্জা করা হয়েছে।

ওয়াশিংটন ডিসিতে বাইডেনের শপথ উপলক্ষে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তায় কাজ করছে ২৫ হাজার সেনা সদস্য। সঙ্গে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যও।

তবে নিরাপত্তা ব্যবস্থার এত কড়াকড়ি থাকলেও বাইডেনের শপথে ওয়াশিংটন ডিসি থাকবে জনমানবশূন্য। যদিও অভ্যন্তরীণ হুমকির কোনো ইঙ্গিত নেই বলছেন দেশটির অস্থায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার।

সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানিয়েছে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এই অস্থায়ী প্রধান গত সোমবার এক বিবৃতিতে বলেন, বাইডেনের অভিষেক ঘিরে সম্ভাব্য নিরাপত্তা উদ্বেগের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটলের সুরক্ষায় সহায়তা করতে ২৫ হাজারেরও বেশি ন্যাশনাল গার্ড সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

মিলার জানান, ন্যাশনাল গার্ড সেনাদের প্রত্যেকের ব্যাকগ্রাউন্ড পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। আর এই কাজে এফবিআই সামরিক বাহিনীকে সহায়তা করছে।

বিবৃতিতে মিলার বলেছেন, ‘বড় ধরনের নিরাপত্তা ইভেন্টের ক্ষেত্রে এই পরীক্ষা স্বাভাবিক, যদিও আমাদের কাছে অভ্যন্তরীণ হুমকির কোনো গোয়েন্দা তথ্য নেই। তার পরও রাজধানীকে সুরক্ষিত করতে কোনো পাথরই উল্টে দেখতে বাকি রাখছি না আমরা।’

Add Comment