মিয়ানমারে তুমুল বিক্ষোভ অব্যাহত, ক্ষমতা দখলের সাফাই দিল সামরিক জান্তা

মিয়ানমারে ক্ষমতা দখলকারী সামরিক জান্তাবিরোধী তুমুল বিক্ষোভের মধ্যে নিজেদের পদক্ষেপের পক্ষে সাফাই গাইলেন সেনা অভ্যুত্থানে নেতৃত্ব দেওয়া সিনিয়র জেনারেল ও সেনাপ্রধান মিন অং হ্লাইং। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের আট দিন পর গতকাল সোমবার প্রথম টেলিভিশন ভাষণে জেনারেল মিন বললেন, ‘নভেম্বরের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।’

সেনা অভ্যুত্থানের বিরোধিতা করে গতকাল সোমবার টানা তৃতীয় দিনের মতো বিপুল গণজমায়েতে বিক্ষোভ হয়। সরকারি অফিসে কর্মবিরতি পালন করেন অনেকে। বিক্ষোভ দমনে কিছু কিছু জায়গায় কারফিউসহ জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়।

জেনারেলের ভাষণ অভ্যুত্থান বিরোধীদের মধ্যে ক্ষোভ আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেক ছবি দেখা গেছে যেখানে মানুষজন টিভি স্ক্রিনের সামনে থালাবাসন পিটিয়ে প্রতিবাদ করছেন।

7th Night: “Driving Evils Out” people keep hitting pans and pots as sign of Protesting against military coup in Myanmar.

noted: a video clip was sent to me by one of my friends from Yangon #WhatsHappeningInMyanmar pic.twitter.com/pJNhCQMGBc— Kyaw Hsan Hlaing (@kyawhsanhlaing1) February 8, 2021

কর্মবিরতি পালনকারী এক চিকিৎসক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিবিসিকে বলেন, ‘আজ আমরা পেশাজীবীরা, বিশেষ করে চিকিৎসক, প্রকৌশলী ও শিক্ষকেরা যাঁরা সরকারি চাকুরিজীবী, আমরা রাস্তায় নেমেছি এটা দেখাতে যে, আমরা ঐক্যবদ্ধ এবং আমাদের লক্ষ্য একটাই, তা হলো স্বৈরাচারের পতন ঘটানো।’

বিবিসির খবরে বলা হয়, ভাষণে জেনারেল মিন অং হ্লাইং দমনপীড়নের ভয়ভীতি দেখানোর বদলে ক্ষমতা দখলের কারণ ব্যাখ্যার দিকে মনোযোগী ছিলেন। নাগরিকদের প্রতি ‘আবেগের বশবর্তী না হয়ে সত্য তথ্য-উপাত্ত দেখার আহ্বান’ জানান তিনি।

জেনারেল বলেন, তাঁর শাসনামল ২০১১ সাল পর্যন্ত চলা ৪৯ বছরের সামরিক নিয়ন্ত্রণের মতো হবে না। ‘সত্যিকারের এবং নিয়মতান্ত্রিক গণতন্ত্র’ অর্জনের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন মিন অং হ্লাইং।

নভেম্বরের নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে দাবি করে সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অং সান সু চিসহ নির্বাচিত নেতাদের আটক করে গত ১ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রক্ষমতা দখলে নেয় সেনাবাহিনী। এরই মধ্যে এক বছরের জন্য জরুরি অবস্থা জারি করেছে সেনাবাহিনী। নভেম্বরের ওই জাতীয় নির্বাচনে গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চির দল এনএলডি বিপুল ভোটে জয়লাভ করে। সেনা সমর্থিত বিরোধী দল শোচনীয় অবস্থায় পড়ে।

সোমবারের ভাষণে সেনা প্রধান মিন অং হ্লাইং বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন নভেম্বরের নির্বাচনে ভোটার তালিকার অনিয়ম তদন্তে ব্যর্থ হয়েছে এবং নির্বাচনি প্রচারে সমতা নিশ্চিত করতে পারেনি।’

সবুজ রংয়ের সামরিক পোশাকে মিন অং হ্লাইং সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, ‘নির্বাচনে বিজয়ীদের হাতে ক্ষমতা তুলে দেওয়া হবে। সংস্কারকৃত একটি নির্বাচন কমিশন ওই ভোটের দেখভাল করবে।’

Add Comment