Home International সহকর্মীকে চুমু, সমালোচনায় ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

সহকর্মীকে চুমু, সমালোচনায় ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

81
0

সহকর্মীকে চুমু খেয়ে সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক। করোনায় সামাজিক দূরত্ব না মেনে সহকর্মীকে চুমু খান তিনি। আর এ দৃশ্যের ছবি ভাইরাল হলে অনেকটা চাপের মুখেই পদত্যাগে বাধ্য হয়েছেন তিনি। তার পদত্যাগপত্র গ্রহণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মী গিনা কোলাডঅ্যাঞ্জেলো নামের ওই সহকারীকে ম্যাট হ্যানকক নিজেই নিয়োগ দেন। গত ৬ মে তোলা তাদের একটি অন্তরঙ্গ ছবি সংবাদমাধ্যমসহ সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়।

নিজ মন্ত্রণালয়ের ভেতরে এমন কর্মকাণ্ডে পদত্যাগের দাবি ওঠে। কিন্তু এ ঘটনা আর বেশি দূর গড়াতে দিতে চায়নি ডাউনিং স্ট্রিট। এমনকি তাকে ক্ষমা করে দেওয়া হয়েছে বলেও জানা যায়।

কিন্তু সব কিছু ছাপিয়ে শনিবার পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে চুমুর ঘটনায় ক্ষমাও চেয়েছেন তিনি। পদত্যাগপত্র পেয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। করোনা মহামারিকালে হ্যানকককের ভূমিকার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদও জানিয়েছেন বরিস। তিনি বলেছেন, ‘কোভিডের সময় স্বাস্থ্য খাতে আপনার সহযোগিতা সত্যিই প্রশংসনীয়’।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, হ্যানকক ও কোলাডঅ্যাঞ্জেলো দু’জনই বিবাহিত। তাদের তিনটি করে সন্তানও রয়েছে। তাদের অন্তরঙ্গ ছবি গত ৬ মে স্বাস্থ্য বিভাগের ভেতরেই তোলা হয়। কোভিডের সংক্রমণের সময় দায়িত্বশীল মন্ত্রী হয়েও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। এমনকি বিরোধীদল থেকেও তার বিরুদ্ধে পদত্যাগের দাবি উঠলে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here