সহিংসতার পর দিল্লির লাল কেল্লায় কড়া পাহারা

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসে রাজধানী দিল্লিতে বিক্ষোভরত কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিল ঘিরে দিনভর সহিংসতার পর ঐতিহ্যবাহী লাল কেল্লার নিরাপত্তা জোরদার করেছে পুলিশ। সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করে কড়া পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

নতুন তিনটি কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে প্রায় দুই মাস ধরে লাখো ভারতীয় কৃষক দিল্লি সীমান্তে টানা আন্দোলন করে যাচ্ছেন। এতদিন তাদের এ আন্দোলন শান্তিপূর্ণভাবে চললেও গতকাল মঙ্গলবার তা সহিংস রূপ নেয়।

এদিন সহিংসতায় অন্তত ৩০০ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এ ঘটনায় দিল্লি পুলিশ অন্তত ২০০ জনকে আটক করেছে। খবর এনডিটিভির।

সহিংসতায় আহত পুলিশ সদস্যদের বেশির ভাগ মুকারবা চৌকো, গাজীপুর, আইটিও, সীমাপুরী, নাঙ্গলাই টি-পয়েন্ট, টিকরি সীমান্ত এবং লাল কেল্লার আশপাশে অবস্থান করছিলেন। এদিন কৃষকেরা গাজীপুর, টিকরি ও সিংহু সীমান্তের ব্যারিকেড ভেঙে ফেলে বলে জানায় দিল্লি পুলিশ।

এদিকে এ বিক্ষোভে সংঘর্ষের জেরে এখন পর্যন্ত অন্তত ২২টি মামলা করেছে পুলিশ। মঙ্গলবারের সংঘর্ষে আটটি বাস এবং ১৭টি ব্যক্তিগত গাড়ি ভাঙচুর করেছে বিক্ষোভকারীরা।

দেশটির পাঞ্জাব ও হরিয়ানা রাজ্যে উচ্চ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। দিল্লি ও হরিয়ানার কিছু এলাকায় বন্ধ রয়েছে ইন্টারনেট ও এসএমএস সেবা।

এর আগে মঙ্গলবার দেশটির প্রজাতন্ত্র দিবসে দিল্লিতে কৃষকদের ট্রাক্টর মিছিলের জেরে সকাল থেকেই পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইনের প্রতিবাদে দিল্লিতে এ দিন সকাল থেকেই বিক্ষোভ শুরু করেন কৃষকরা।

এদিকে ট্রাক্টর র‍্যালি ঘিরে উত্তেজনার মধ্যে কৃষকদের ওপর লাঠিচার্জের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। পরিস্থিতি সামলাতে কাঁদানে গ্যাসও নিক্ষেপ করা হয়।

Add Comment