৯০ হাজার প্রাণীর জীবন বাঁচিয়েছে এই পরিবার

ভয়াবহ দাবানলে পুড়ছে অস্ট্রেলিয়া। এরই মধ্যে আগুনে পুড়ে মারা গেছে হাজার হাজার বন্য প্রাণী। উদ্ধারকর্মীরা অনেক প্রাণীকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দিচ্ছেন। তবে সবার মধ্যে উজ্জ্বল ব্যতিক্রম আরউইন পরিবার। পুরো পরিবার মিলে এরই মধ্যে ৯০ হাজারেরও বেশি বন্য প্রাণীকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে সুস্থ করেছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দাবানলে পুড়ে যাওয়া অসংখ্য বন্য প্রাণীকে নিজেদের উদ্যোগে চিকিৎসাসেবা দিয়ে সুস্থ করেছে আরউইন পরিবার। অস্ট্রেলিয়ার চিড়িয়াখানার অধীনে ‘ওয়াইল্ডলাইফ হাসপাতাল’ নামে একটি হাসপাতাল আছে আরউইন পরিবারের। সেখানেই এই বন্য প্রাণীদের চিকিৎসা দেন তাঁরা। ওলি নামের একটি প্লাটিপাসকে চিকিৎসা দেওয়ার পর আরউইন পরিবারের সদস্য রবার্ট আরউইন ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করে জানান, ওলি ৯০ হাজারতম প্রাণী, যাকে তাঁরা চিকিৎসাসেবা দিয়েছেন।

আরউইন পরিবারের আরেক সদস্য, রবার্টের বোন বিন্ডি আরউইন গত বৃহস্পতিবার ইনস্টাগ্রামে একটি পোস্ট করেছেন। পোস্টটির সঙ্গে সংযুক্ত ছবিতে দেখা গেছে, তাঁর মা ও ভাই চিকিৎসার জন্য একটি কুমিরকে কোলে করে নিয়ে যাচ্ছেন। ২১ বছর বয়সী বিন্ডি পোস্টটিতে লিখেছেন, ‘ভয়াবহ এই দাবানলে যেসব মানুষ এবং প্রাণী মারা গেছে, তাদের জন্য আমাদের গভীর শোক ও সমবেদনা রয়েছে। তবে এই দাবানল থেকে আমাদের চিড়িয়াখানা নিরাপদে আছে। আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে হাসপাতালে আমাদের বেশি ব্যস্ত সময় কাটাতে হচ্ছে। এরই মধ্যে আমরা ৯০ হাজারের বেশি প্রাণীকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিকিৎসাসেবা দিয়েছি। আমার মা–বাবা এই হাসপাতালটি আমার দাদিকে উৎসর্গ করেছিলেন। যত বেশি সম্ভব প্রাণীর জীবন বাঁচিয়ে আমরা আমাদের দাদির প্রতি সম্মান জানাতে চাই।’

Add Comment