নিউজিল্যান্ডে আকস্মিক বন্যায় হাজারো মানুষ ঘরবাড়ি ছেড়েছে

নিউজিল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলে আকস্মিক বন্যায় ঘরবাড়ি ছেড়েছে হাজারো মানুষ। সেই সঙ্গে প্রত্যন্ত মিলফোর্ড সাউন্ড বিউটি পর্যটন স্পটে আটকা পড়েছেন অনেক পর্যটক। এখন পর্যন্ত দুজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আজ বুধবার বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

নিউজিল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলের নগরগুলোতে কয়েক দিন ধরে চলা ভারী বৃষ্টিপাতের প্রভাবে এই বন্যা দেখা দিয়েছে। এসব অঞ্চলে ‘জরুরি অবস্থা’ ঘোষণা করা হয়েছে। গত ৬০ ঘণ্টায় সেখানে ১ হাজার মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। প্রধান প্রধান সড়কে ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে। এ ছাড়া নদীর তীরগুলোতে ফাটল দেখা দিয়েছে।

বুধবার ভোরে জরুরি ভিত্তিতে নিম্নাঞ্চল গোর ও মাতৌরার বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। মাতৌরা নদীর পানি তীরে উঠে আসে। উইন্ডহ্যাম অঞ্চলের মানুষদের এলাকা ছাড়তে হতে পারে—এমন সতর্কবার্তা দেওয়া হয়েছে।

মিলফোর্ড সাউন্ড বিউটি পর্যটন স্পটে আটকা পড়েছেন অনেক পর্যটক। ছবি: রয়টার্স

মিলফোর্ড সাউন্ড বিউটি পর্যটন স্পটে আটকা পড়েছেন অনেক পর্যটক। ছবি: রয়টার্স

ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্টস সাউদল্যান্ডের (ইএমএস) মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপপিকে বলেন, ‘আমরা ৬ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে নোটিশ জারি করেছি। বাসিন্দাদের ওষুধ, পোশাক ও নিজেদের পরিচয়পত্র নিয়ে যেতে বলা হয়েছে। অঞ্চলটিতে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এখন পর্যন্ত দুজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।’

পর্যটকদের জন্য জনপ্রিয় পর্যটক স্পট পর্বত মিলফোর্ড সাউন্ডের একমাত্র রাস্তা বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। ইএমএস জানিয়েছে, প্রায় ২০০ পর্যটক সেখানে অবস্থান করছেন।

Add Comment