নিউজিল্যান্ডে আসা প্রত্যেককে ‘সেলফ-আইসোলেট’ হতে হবে

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্ন বলেছেন, করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে কাল রোববার মধ্যরাত থেকে তাঁর দেশে আসা প্রায় প্রত্যেককে অবশ্যই ‘সেলফ-আইসোলেট’ হতে হবে।

আজ শনিবার এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এই ঘোষণা দেন জেসিন্ডা আরডার্ন। বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

জেসিন্ডা আরডার্ন জানান, করোনা প্রতিরোধে তাঁর সরকারের নেওয়া এই নতুন পদক্ষেপ নিউজিল্যান্ডের অধিবাসীদের জন্যও প্রযোজ্য হবে। তবে এ ক্ষেত্রে ছাড় পাবেন প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপপুঞ্জের অধিবাসীরা। কারণ, সেখানে এখন পর্যন্ত এই ভাইরাস হানা দেয়নি।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নেওয়া নতুন এই পদক্ষেপকে বিশ্বের সবচেয়ে কঠোর বলে বর্ণনা করেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি কোনো ক্ষমা চাইছি না। কারণ, এখনকার সময়টা অভূতপূর্ব।’

জেসিন্ডা আরডার্ন জানান, সরকারের নেওয়া পদক্ষেপ ১৬ দিনের মধ্যে পর্যালোচনা করবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

করোনাভাইরাস নিউজিল্যান্ডেও হানা দিয়েছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছয় ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জানান, নতুন বিধিনিষেধের আওতায় মানুষ আসে, পণ্য নয়। আকাশ ও নৌপথে অপরিহার্য পণ্য সরবরাহ স্বাভাবিকভাবে চলবে।

জেসিন্ডা আরডার্ন তাঁর দেশের জনগণকে করমর্দন, কোলাকুলি ও নাকে নাক লাগানোর মতো অভিবাদন পরিহার করতে আহ্বান জানিয়েছেন।

Add Comment