গুগল ম্যাপ দেখে ড্রাইভিং, গাড়ি ৩০ ফুট খাদে

গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালানোর সময় ৩০ ফুট গভীর একটি খাদে পড়ে যান চালকসহ তিনজন। তবে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করায় প্রাণে বেঁচে যান তাঁরা। বেঁচে গেলেও বুকে ও মাথায় আঘাত পেয়েছেন।

ভারতের কেরালার পালামট্টম-অভোলিচল রোড ধরে গত বৃহস্পতিবার রাতে যাচ্ছিলেন তিন বন্ধু গোকুলদাস, ইসাহাক ও মোস্তফা । তাঁরা সবার বাড়ি ত্রিশূরের ওয়াদাক্কানচেরিতে। ত্রিশূর থেকে মুন্নার যাওয়ার জন্য সহজ ও শর্টকাট পথ ধরে যাচ্ছিলেন তাঁরা। পথ না চেনায় গুগল ম্যাপ দেখে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। অন্ধকার থাকায় খাদ বুঝতে না পেরে ধপাস করে পড়ে যায় গাড়ি।

ওই যুবকেরা জানিয়েছেন, পালামট্টম-অবলিচল রোড ধরে যাওয়ার সময় হঠাৎ মধ্য রাস্তায় একটি বিশাল খাদ নজরে আসে তাঁদের। কিন্তু গাড়ি তখন খাদের প্রায় কিনারায় চলে যায়। চালকের আসনে থাকা যুবক ব্রেক ধরেও গাড়ি থামানোর চেষ্টা করে পারেননি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তিনজনকে নিয়ে গাড়িটি পড়ে যায় খাদে। খাদের মধ্যে পানি ছিল প্রায় আট ফুট। তবে দুর্ঘটনার কারণে গাড়ির দরজা খুলে যাওয়ায় তিনজনই কোনো ক্রমে গাড়ি থেকে বেরিয়ে আসেন। কিন্তু কেউই সাঁতার না জানায় তাঁরা গাড়ির ওপর দাঁড়িয়ে সাহায্যের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। তখন রাবার কারখানায় কাজ করে ফিরছিলেন ছয়জন। তাঁরাই নিজেদের পরনের কাপড় খুলে বেঁধে লম্বা রশির মতো করে ওই তিনজনকে উদ্ধার করেন। সেখান থেকে তাঁদের হাসপাতালে নেওয়া হয়।

রাস্তার মাঝপথে ওই গভীর খাদের রহস্যর ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, ওই জায়গায় একটি সেতু ছিল। কিছুদিন আগেই সেটি ভেঙে নতুন একটি সেতু করে তৈরির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে সেতু ভাঙা হলেও রাস্তার দুই দিকে ঠিকমতো সতর্কবার্তা দেওয়া হয়নি। আর তাই মাঝেমধ্যেই সেখানে দুর্ঘটনা ঘটছে।

Add Comment