ধর্ষণের ভিডিও ভাইরাল, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

ময়মনসিংহের ভালুকা থেকে এক নারীকে অপহরণ করে গাজীপুরের শ্রীপুরে এনে গণধর্ষণ এবং তার ভিডিও ধারণ করে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় প্রধান আসামি আসামি সোহাগ মিয়াকে (৩৫) গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

মঙ্গলবার দুপুরে র‍্যাব-১ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে জয়দেবপুর থানার মনিপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তার সোহাগ ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকার বাসিন্দা।

র‍্যাব-১ এর গাজীপুরের কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ৫ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার ভরাডোবা এলাকা হতে ওই নারীকে অপহরণ করে প্রাইভেটকারে করে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর থানার এমসি বাজার এলাকায় এনে জীবননাশের হুমকি দেয় এবং নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ করে।

অপহরণ ও গণধর্ষণের মূলহোতা সোহাগ ওই ভিডিও বিভিন্ন সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। পরে বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

র‍্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সোহাগ জানায়, সে পেশায় একজন বাসচালক। তার অন্যান্য সহযোগী তিন বন্ধু মিলে ৫ সেপ্টেম্বর রাতে ভূক্তভোগীকে অপহরণের পর ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে। পরদিন সকালে তারা ভুক্তভোগীকে অজ্ঞান অবস্থায় রুমে তালাবদ্ধ করে রেখে চলে যায়।

সোহাগ জানায়, অর্থের বিনিময়ে ওই ভিডিও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়।

র‍্যাব তাকে গ্রেপ্তারের পর তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন থেকে গণধর্ষণের ভিডিও ক্লিপ উদ্ধার করেছে বলে জানান আব্দুল্লাহ আল মামুন।

Add Comment