কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশের ভিসা জাল হওয়ার ঘটনার সঙ্গে বাংলাদেশ হাইকমিশনের এক কর্মকর্তার জড়িত থাকার অভিযোগ উঠেছে। দেশটি থেকে জাল ভ্রমণ ভিসায় বাংলাদেশে যাওয়া রোহিঙ্গাদের ঢাকার হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে আটক ও জিজ্ঞাসাবাদের পর এ তথ্য সামনে এসেছে। এই জাল ভ্রমণ ভিসা ইস্যু করার অভিযোগ উঠেছে ক্যানবেরার বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রথম সচিব নাজমা আক্তারের বিরুদ্ধে। ঢাকা বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ নাজমা আক্তারের বিরুদ্ধে আসা অভিযোগটি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে দাপ্তরিকভাবে জানিয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক বিচার-বিশ্লেষণের পর তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে।

ঢাকার হজরত শাহজালাল বিমানবন্দরে বাংলাদেশের জাল ভিসাধারী ছয়জন মিয়ানমারের নাগরিককে প্রথম আটক করা হয় সদ্য বিদায়ী বছরের ২০ ডিসেম্বর। তখন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ পুলিশের ইমিগ্রেশন বিভাগের বিশেষ পুলিশ সুপারকে দেওয়া এক চিঠিতে (স্মারক নম্বর ৮৪১৭ /ইমিগ্রেশন) জানানো হয়, অস্ট্রেলিয়া থেকে ছয়জন মিয়ানমারের নাগরিক দেশটির ট্রাভেল ডকুমেন্টে বাংলাদেশের ভিসা নিয়ে আগমনী টার্মিনালে আসে। তাদের ভ্রমণ দলিল সন্দেহজনক মনে হওয়ায় ট্রাভেল ডকুমেন্টে থাকা বাংলাদেশের ভিসা স্ক্যান করে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ হাইকমিশনে পাঠানো হয়। বাংলাদেশ হাইকমিশন ইমেইলের মাধ্যমে ভিসাগুলো সঠিক নয় বলে জানায়।

Add Comment