সিডনিতে সাহিত্যসন্ধ্যা ও আড্ডায় সেলিনা হোসেন

অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে পৃথকভাবে হয়ে গেল বিশেষ সাহিত্যসন্ধ্যা ও বৈকালী আড্ডা। পৃথক এই দুই অনুষ্ঠানে মধ্যমণি ছিলেন বাংলাদেশের খ্যাতনামা কথাসাহিত্যিক ও গবেষক এবং একুশে পদকে সম্মানিত সেলিনা হোসেন।

সাহিত্যসন্ধ্যা
গত শুক্রবার (২৭ সেপ্টেম্বর) সিডনির হার্স্টভিলের সিভিক সেন্টারে ‘গায়ত্রী সন্ধ্যায় যাপিত জীবনের গল্প’ শীর্ষক সাহিত্যসন্ধ্যায় যাপিত জীবনের গল্প শোনান সেলিনা হোসেন। সাহিত্যসন্ধ্যায় মধ্যমণি ছিলেন তিনি। এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে একুশে একাডেমি অস্ট্রেলিয়া।

সাহিত্যসন্ধ্যায় উপস্থিত দর্শক-শ্রোতারা মুগ্ধ হয়ে শোনেন খ্যাতনামা এই কথাসাহিত্যিক ও গবেষকের জীবনের নানান অভিজ্ঞতার কথা। তিনি তাঁর জীবন ও কর্ম নিয়েও কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে আয়োজক সংগঠন তাঁকে ‘একুশে একাডেমি অস্ট্রেলিয়া সম্মাননা-২০১৯’ প্রদান করে।পেন্সিলের বৈকালী আড্ডায় সেলিনা হোসেন 

পেন্সিলের বৈকালী আড্ডায় সেলিনা হোসেন

পেন্সিলের বৈকালী আড্ডা
শনিবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সিডনির ইঙ্গেলবার্নে ফেসবুক গ্রুপ পেন্সিলের তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজন করা হয় এক বৈকালী আড্ডার। এ আয়োজনে সবান্ধব উপস্থিত ছিলেন সিডনিতে বসবাসরত পেন্সিলের সদস্যরা।

বৈকালী আড্ডার সবচেয়ে চমক ছিল সেলিনা হোসেনের অংশগ্রহণ। তিনি একুশে একাডেমি অস্ট্রেলিয়ার ‘গায়ত্রী সন্ধ্যায় যাপিত জীবনের গল্প’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সিডনিতে এসেছিলেন।

অনুষ্ঠানের আয়োজকদের অন্যতম সাকিনা আক্তার আশাবাদ ব্যক্ত করেন, প্রবাসী নতুন প্রজন্মকে শুদ্ধ বাংলা সাহিত্য চর্চা ও সাহিত্যের প্রতি অনুরাগী করে তুলতে ভবিষ্যতেও পেন্সিল ভূমিকা রাখবে।

অংশগ্রহণকারীদের মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে অনুষ্ঠান প্রাঙ্গণ। নানা বয়সী পেন্সিলররা নিজস্ব শিল্প-প্রতিভায় অনুষ্ঠানটিকে আরও ফুটিয়ে তোলেন।

পেন্সিলের বৈকালী আড্ডায় সমবেতরা 

পেন্সিলের বৈকালী আড্ডায় সমবেতরা 

Add Comment